fbpx
মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২
প্রচ্ছদঅপরাধকিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কিশোরীকে বিয়ের জন্য ডেকে বন্ধুদের নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।৩০ অক্টোবর দুপুরে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভা এলাকার কালাদি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার কালাদি এলাকার জাহিদুল ইসলামের ছেলে তাইজুল ইসলাম ও একই এলাকার মৃত লাল মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া।

কাঞ্চন পৌরসভার বাড়ৈপাড়া এলাকার হৃদয় নামের এক যুবকের সঙ্গে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ওই কিশোরীর। ২৮ অক্টোবর দুপুর ১২টার দিকে হৃদয় তাকে বিয়ে করে বাড়ি নিয়ে যাবে বলে তৈরি থাকতে বলেন। কিশোরী তার কথামতো নলপাথর এলাকার রিজেন্ট টাউনের সামনে যায়। এ সময় হৃদয়সহ পাঁচ যুবক তাকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আবাসন এলাকায় থাকা কাশবনের ভেতর নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন।পরে কিশোরীর হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে তাকে ফেলে রেখে সবাই চলে যান। স্থানীয় কয়েকজন তাকে নির্জন স্থানে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখতে পেয়ে ৯৯৯-এ কল করে পুলিশের সহায়তা চান। পুলিশ এসে বিকেল ৪টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে ছয়জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে অভিযান চালিয়ে রোববার দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক হুমায়ন কবির মোল্লা  বলেন, গ্রেফতার দুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

RELATED ARTICLES
- CDM HOSPITAL -

সর্বশেষ