রাজধানীতে গৃহবধুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

0
71
প্রতিকী ছবি।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের চান মিয়া হাউজিংয়ের একটি বাসা থেকে মাহবুবা আক্তার সিনথিয়া (৩০) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্যবসায়ী স্বামী তাকে সময় না দেওয়ায় ওই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ নিহতের স্বজনদের।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) দুপুর দেড়টার ওই নারীকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচা শাহাদাত হোসেন জানান, মোহাম্মদপুরের চান মিয়া হাউজিংয়ে নিজের ফ্ল্যাটে স্বামীর সঙ্গে থাকতেন তার ভাতিজি। তবে নিহতের স্বামী ব্যবসার কাজে অধিকাংশ সময় বাসার বাইরে থাকেন। এ কারণে তিনি অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন। সোমবার ওই নারী ওড়না দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেন। পরে প্রতিবেশীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতাল নেওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, নিহতের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং থানার কলমা গ্রামে। বর্তমানে মোহাম্মদপুরের চান মিয়া হাউজিংয়ে থাকতেন। স্বামীর নাম মোহাম্মদ মনির ফকির। নিহত নারী দুই ছেলের মা ছিলেন।

নিহতের ভাই নাজমুল আলম অভিযোগ করে বলেন, আমার বোনকে তার স্বামী হত্যা করেছে। আমার বোনের পাইলসের সমস্যা ছিল। সবসময় অসুস্থ হয়ে থাকতো। তার স্বামী ব্যবসার কাজে বাইরে বাইরে থাকতো। তাকে সময় দিতো না। ঠিকভাবে চিকিৎসা না করায় আমার বোন মারা গেছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া ওই গৃহবধূর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here